রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৮:১৫ পূর্বাহ্ন
add

জীবনের সর্বক্ষেত্রে শরীয়ত ও রসুলুল্লাহ (সা.)-এর জীবনাদর্শ অনুসরণ না করে অলী হওয়া যায় না -পীর সাহেব চরমোনাই

রিপোটারের নাম / ১১৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ জানুয়ারী, ২০২২
উদ্বোধনী বয়ানে ফলোগ্রান্ড মাঠে তিন দিনব্যাপী বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলের শুরু
উদ্বোধনী বয়ানে ফলোগ্রান্ড মাঠে তিন দিনব্যাপী বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলের শুরু

উদ্বোধনী বয়ানে ফলোগ্রান্ড মাঠে তিন দিনব্যাপী বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলের শুরু

চরমোনাইয়ের নমুনায় চট্টগ্রামের ফলোগ্রান্ড মাঠে তিন দিনব্যাপী বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল আজ ৬ জানুয়ারি ২০২২ (বৃহস্পতিবার) বাদ জোহর চরমোনাইয়ের পীর সাহেব হযরত মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম (দা. বা.)-এর উদ্বোধনী বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে। উদ্বোধনী বয়ানে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, জীবনের সর্বক্ষেত্রে আল্লাহপ্রদত্ত শরীয়ত ও রসুলে খোদা (সা.)-এর তরীকা অনুসরণ না করে অলী হওয়া যায় না। অনেকে মনে করেন, শুধু তসবিহ-তাহলিল ও পীর-মুরীদী করলেই মানুষ অলী হয়ে যাবেন। সমাজ, রাষ্ট্র, বাণিজ্যসহ সর্বক্ষেত্রে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের জীবনাদর্শ পুরোপুরি মানতে হবে।

চরমোনাইয়ের মাহফিলের উদ্দেশ্য সম্পর্কে হযরত পীর সাহেব চরমোনাই (দা. বা.) বলেন, চরমোনাই প্রচলিত কোনো দরবারি পীরপ্রথা নয়। নিঃসন্তান দম্পত্তিদের সন্তান লাভ, ছেলে-মেয়ের বিয়ে হয়ে যাওয়া, মামলা-মোকাদ্দমায় জয়লাভের উদ্দেশ্যে চরমোনাইয়ের তরীকায় এসে কোনো লাভ হবে না। এসব ক্ষমতা কোনো পীরের হাতে নেই।

সবসমস্যার সমধান যার হতে, যিনি দাতা সেই মহান আল্লাহ তাআলার সঙ্গে সম্পর্ক করে দেওয়াই চরমোনাইয়ের মাহফিলের উদ্দেশ্য। পীর সাহেব হুজুর (দা. বা.) বলেন, সমাজ, রাষ্ট্র ও বাণিজ্যসহ মানব-জীবনের প্রতিটি বিষয়ে ইসলাম সর্বোত্তম ও সুন্দর নীতি-আদর্শ উপহার দিয়েছেন। বৈরাগ্য, সন্ন্যাসব্রত ও শুধু তাসীবহ-তাহলীলে লিপ্ত থাকার নামই ধর্ম নয়, এটি ধর্মের অপব্যাখ্যা। শত্রুদের প্রপাগাণ্ডা ও ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে ইসলামকে খণ্ডিতভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে বলে পীর সাহেব হুজুর সর্তক করেন।

এক নজরে মাহফিলের কার্যক্রম

  • পীর সাহেব হুজুরের বয়ান: প্রত্যেহ ফজর ও এশার নামাযের পর হযরত পীর সাহেব হুজুর চরমোনাই বয়ান পেশ করবেন।
  • ওলামা-মাশায়েখ সম্মেলন: ৭ জানুয়ারি (শুক্রবার), বাদ জুমা, মাহফিলের ময়দানে,

প্রধান অতিথি: হযরত পীর সাহেব হুজুর চরমোনাই।

  • আখেরি মুনাজাত: ৯ জানুয়ারি (রোববার), ফজরের নামাযের পর বয়ান ও আখেরি মুনাজাত, পরিচালনা করবেন: হযরত পীর সাহেব হুজুর চরমোনাই।

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ