রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ১১:১৫ পূর্বাহ্ন
add

তুর্কি প্রতিনিধিসহ জায়গা পরিদর্শন সিএন্ডবি এলাকায় হাসপাতাল নির্মাণের ইচ্ছা মেয়রের

রিপোটারের নাম / ৮২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ জানুয়ারী, ২০২২
nagoriknewsbd/photo
তুর্কি প্রতিনিধি দলকে সাথে নিয়ে প্রস্তাবিত হাসপাতাল করার স্থান পরিদর্শন করছেন চসিক মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

চট্টগ্রাম:

নগরীর কালুরঘাট সিএন্ডবি রাস্তার মাথা এলাকায় কর্পোরেশনের জায়গায় হাসপাতাল নির্মাণের জন্য তুরস্ক সরকারের প্রতিনিধি ডেনিজ বুলকুর (Deniz Bulkur) কে প্রস্তাব দিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী। আজ বৃহস্পতিবার সিএন্ডবি রাস্তার মাথা এলাকায় হাসপাতালের জন্য প্রস্তাবিত জায়গায় তুর্কি প্রতিনিধিদলকে নিয়ে পরিদর্শনে যান।

এসময় তুরস্কস্থ দক্ষিণ আঙ্কারার কোনিয়া সিটি ও বাংলাদেশের অনরারি কনস্যুল ডেনিজ বুলকুর (Deniz Bulkur), বাংলাদেশস্থ অনরারি কনস্যুল সালাউদ্দিন কাশেম খান, মেয়রের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাশেম, চসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আলী উপস্থিত ছিলেন। প্রস্তাবিত হাসপাতালের স্থানে চসিকের প্রায় ১১ একর জায়গা রয়েছে। পরিদর্শনকালে মেয়র বলেন, চট্টগ্রাম নগরী দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম নগরী।

বন্দরসহ ব্যবসা বাণিজ্যের কারণে এই নগরীর গুরুত্ব রয়েছে। যে কারণে প্রধানমন্ত্রী ট্যানেল নির্মাণ, এলিভেটেড এক্সপ্রেস ওয়ে নির্মাণের পাশাপাশি মেট্রোরেল চালুর ঘোষণা দিয়েছেন। অবকাঠামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি নগরীর স্বাস্থ্য খাতে যে পরিমাণ উন্নয়ন হওয়া প্রয়োজন তা এখনো কাক্সিক্ষত মাত্রায় করা সম্ভব হয়নি।

এজন্য শুধুমাত্র সরকারি সহায়তার দিকে চেয়ে থাকলে হবেনা। তাই চসিকের উদ্যোগে একটি হাসপাতাল নির্মাণে আমরা তুরস্ককে পাশে চাই। তুর্কী সরকার ২৫০শয্যা বিশিষ্ট নতুন ভবন নির্মাণ করলে উত্তর ও দক্ষিণ চট্টগ্রামসহ নগরবাসী সুলভে চিকিৎসাসেবা পাবে বলে আমার ধারণা।

তিনি বলেন, চট্টগ্রামে সরকারি ব্যবস্থাপনায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, জেনারেল হাসপাতাল, রেলওয়ে হাসপাতাল ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত যেসব হাসপাতাল এবং স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র আছে তাতে নগরবাসী ও বৃহত্তর চট্টগ্রামের জনসাধারণ পযাপ্ত চিকিৎসা সেবা নিতে পারেন না। তাই নগরবাসীর স্বাস্থ্যসেবার জন্য আরো হাসপাতাল প্রয়োজন। চসিক ও তুর্কী ব্যবস্থাপনায় একটি ২৫০শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল নির্মিত হলে সুলভে নগরবাসী সহ চট্টগ্রামের সকলেরই চিকিৎসাসেবার সংকট অনেকাংশেই ঘুচবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ