রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন
add

পটিয়ায় গভীর রাতে এতিমখানার প্রাচীর ভাংচুর

রিপোটারের নাম / ৮৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : সোমবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২২
nagoriknewsbd/photo

পটিয়া উপজেলা সংবাদদাতা: পটিয়া পৌরসদরের আলম শাহ্ সড়ক এলাকায় পূর্ব শত্রুুতার জের ধরে হাজী আবদুছ ছত্তার হেফজখানা ও এতিমখানার সীমানা প্রাচীর ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রবিবার গভীর রাতে একটি সন্ত্রাসী বাহিনী এ ঘটনা ঘটায়।

এব্যাপারে রবিবার পটিয়া থানায় হাজী আবুল কালাম বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পটিয়া পৌর সদরের ৬নং ওয়ার্ডের পাইকপাড়া বৈলতলী রোড আলম শাহ্ সড়কে প্রবাসী আবুল বশর তার পিতার নামে হাজী আবদুছ ছত্তার জামে মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেন। এ মসজিদের পার্শ্বে হেফজখানা ও এতিমখানা প্রতিষ্ঠার জন্য ভূমি ক্রয় করে ভূমির চারপাশে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা হয়। এছাড়া গত ২০২১ সালের মার্চ মাসে হেফজখানা ও এতিমখানা নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করে এতিমখানা ও হেফজখানা নির্মাণের জন্য টিনশেড দিয়ে প্রাথমিক কাজ শুরু করা হয়। কিছুদিন কাজ বন্ধ থাকার পর গত ডিসেম্বর মাসে পুনরায় কাজ শুরু করলে পাশ্ববর্তী ভূমি মালিক প্রবাসী মুসার স্ত্রী ফারজানা আক্তার লোকজন নিয়ে কাজে বাঁধা দেয় এবং যে কোন মুহুর্তে সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে জায়গা দখলের হুমকি দেয়। এঘটনায় ১৮ ডিসেম্বর থানায় একটি জিডি করা হয়। হাজী আবদুছ ছত্তারের পুত্র মোঃ ফরিদ জানান পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শনিবার দিবাগত রাতে একটি সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনী মসজিদের এতিমখানার সীমানা প্রাচীর ভাংচুর চালায়। এসময় মসজিদের মুয়াজ্জিনকে গলায় কিরিচ ধরে বের হতে দেয়নি। আমি খবর পেয়ে পটিয়া থানা পুলিশকে খবর দিলে থানার এস. আই মোরশেদ আলম একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।
এব্যাপারে পটিয়া থানার এস, আই মোরশেদ জানান গভীর রাতে এতিমখানার সীমানা প্রাচীর ভাংচুরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে ভাংচুরকারীরা পালিয়ে যায় ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ